পাকিস্তানে সামরিক বিমান ভেঙ্গে পড়ল আবাসিক এলাকায়, নিহত ১৫

পাকিস্তানের রাওয়ালপিন্ডি শহরের এক আবাসিক এলাকার মধ্যে ছোট একটি সামরিক বিমান ভেঙ্গে পড়ে অন্তত ১৫ জন নিহত হয়েছেন।

নিহতদের মধ্যে ৫ জন ছিলেন বিমানটির ক্রু আর বাকি ১০ জন আবাসিক এলাকাটির বাসিন্দা।

জানা গেছে, বিমানটি প্রশিক্ষণের কাজে ব্যবহার করা হচ্ছিল। দূর্ঘটনায় নিচে পড়ে যাওয়ার সময় বিমানটিতে আগুন ধরে যায় এবং তা আশেপাশের কয়েকটি বাড়িতে ছড়িয়ে পড়ে।

রাওয়ালপিন্ডি শহরটির অবস্থান পাকিস্তানের রাজধানী ইসলামাবাদের কাছেই। রাওয়ালপিন্ডিতে পাকিস্তান সেনাবাহিনীর সদর দপ্তর অবস্থিত।

ভেঙ্গে পড়া বিমানটি কিভাবে দূর্ঘটনায় পড়েছিল সে ব্যাপারে পরিষ্কার করে এখনও কিছু জানা যায়নি। দুর্ঘটনার পর স্থানীয় মানুষজন সেখানে জড়ো হয়ে আহতদের উদ্ধার করে।

গণমাধ্যমে আসা ছবি থেকে দেখা যায়, পুড়ে কালো হয়ে যাওয়া কয়েকটি বাড়ি ধ্বংসস্তুপে পরিণত হয়েছে। এএফপি-র একজন সংবাদদাতা ঘটনাস্থল থেকে জানান, ভেঙ্গে পড়া বাড়ি থেকে তখনও ধোঁয়া উড়ছিল। তিনি একটি বাড়ির ছাদে বিমানটির ধ্বংসাবশেষ পড়ে থাকতে দেখেছেন।

২০১০ সালে ইসলামাবাদের কাছে অনেকটা একইভাবে একটি বেসরকারি যাত্রী বিমান ভেঙ্গে পড়েছিল। পাকিস্তানের ইতিহাসে সবেচেয়ে বড় সেই বিমান দূর্ঘটনায় প্রাণ হারিয়েছিলেন ১৫২ জন।