Home ইউরোপ ইউরোপে বিশ্বযুদ্ধ সমাপ্তির ৭৫তম বার্ষিকী স্বল্প পরিসরে পালিত

ইউরোপে বিশ্বযুদ্ধ সমাপ্তির ৭৫তম বার্ষিকী স্বল্প পরিসরে পালিত

ইউরোপে দ্বিতীয় বিশ্বযুদ্ধ সমাপ্তির ৭৫তম বার্ষিকী উপলক্ষে একঝাঁক বিমানের রঙিন ফ্লাইপাস্ট (Image: Reuters)

চলমান করোনা পরিস্থিতির জেরে আজ স্বল্প পরিসরে পালিত হচ্ছে ইউরোপে দ্বিতীয় বিশ্বযুদ্ধ শেষ হওয়ার ৭৫তম বার্ষিকী। ‘ভিকট্রি ডে’ হিসেবে পালিত দিনটির এবছরের অনুষ্ঠানগুলোতে করোনা সংক্রমণ এড়াতে থাকছেনা বাড়তি কোন আয়োজন কিংবা জনসমাগম।

দ্বিতীয় বিশ্বযুদ্ধে নিহতদের স্মরণে ব্রিটেনে দু’মিনিট নীরবতা পালন করা হয়। সম্প্রচার করা হয় দিনটি উপলক্ষে রাণী এলিজাবেথের দেওয়া ভাষণ।

সীমিত পরিসরের স্মরণ অনুষ্ঠানে বিশ্বযুদ্ধে শহীদদের প্রতি সম্মান জানান ফরাসি প্রেসিডেন্ট ইয়ানূয়েল ম্যাক্রো ও জার্মান চ্যান্সেলর অ্যাঙ্গেলা মেরকেল।

ইউরোপের অন্যত্রও ছোটখাট অনুষ্ঠানের মধ্য দিয়ে পালিত হচ্ছে ভিকট্রি ডে-র এবারের ৭৫তম বার্ষিকী। অন্যান্যবারের মত বর্নাঢ্য আয়োজন, কুচকাওয়াজ বা বড় ধরনের জমায়েত থেকে এবার বিরত থাকছে ইউরোপের সবক’টি দেশই।

১৯৩৯ সালে শুরু হওয়া দ্বিতীয় বিশ্বযুদ্ধ ছ’বছর ধরে কয়েক কোটি মানুষের প্রাণ নিয়ে শেষ হয় ১৯৪৫ সালে। সেবছর ৮ মে রাতে (সোভিয়েত ইউনিয়নে ৯মে দিবাগত রাতে) ব্রিটেন, ফ্রান্সসহ মিত্রশক্তির ইউরোপীয় সদস্য ও সোভিয়েত ইউনিয়নের কাছে অক্ষশক্তির প্রধান দেশ হিটলারের নাৎসি জার্মানির নিঃশর্ত আত্মসমর্পণ কার্যকর হয়। বিশ্বযুদ্ধ অবশ্য আনুষ্ঠানিকভাবে শেষ হয়েছিল এরও চার মাস পর মিত্রশক্তির কাছে অক্ষশক্তির আরেক দেশ জাপানের আত্মসমর্পণের মধ্য দিয়ে।

এরপর থেকে প্রতিবছর ৮ মে ভিকট্রি ডে হিসেবে পালন করে আসছে ইউরোপের দেশগুলো। আর রাশিয়াসহ সাবেক সোভিয়েত ইউনিয়নভুক্ত দেশগুলো দিনটি পালন করে আসছে পরদিন ৯ মে।

এবারের করোনা পরিস্থিতি মাথায় রেখে দেশগুলো সীমিত আকারে পালন করছে ঐতিহাসিক এই দিনটি। ফ্রান্সের রাজধানী প্যারিসে বিশ্বযুদ্ধে নিহতদের সম্মানে নির্মিত স্মৃতিসৌধে ফুল দিয়ে শ্রদ্ধা জানান প্রেসিডেন্ট ইমানূয়েল ম্যাক্রো। অল্প কয়েকজন সরকারি কর্মকর্তা ও আমন্ত্রিত অতিথি এতে যোগ দেন একে অন্যের থেকে নির্দিষ্ট দূরত্বে দাঁড়িয়ে। প্রেসিডেন্ট ম্যাক্রো এর আগে অনুষ্ঠানের সূচনা করেন দ্বিতীয় বিশ্বযুদ্ধে ফ্রান্সকে নেতৃত্ব দেওয়া জেনারেল চার্লস দ্য গলের ভাস্কর্যে ফুল দিয়ে।

জার্মান চ্যান্সেলর অ্যাঙ্গেলা মেরকেল রাজধানী বার্লিনের কেন্দ্রীয় যুদ্ধ স্মারক নুয়ে ওয়াচে ফুল দিয়ে বিশ্বযুদ্ধে নিহতদের প্রতি শ্রদ্ধা জানান। সেখানে আয়োজিত অনুষ্ঠানে জার্মান প্রেসিডেন্ট ফ্রাঙ্ক-ওয়াল্টার স্টেইনমেয়ারসহ দেশটির শীর্ষ ব্যক্তিরা উপস্থিত ছিলেন।

ইউরোপের দেশগুলোতে ভিকট্রি ডে ৮ মে পালিত হলেও রাশিয়া, ইউক্রেন, বেলারুশসহ সাবেক সোভিয়েত ইউনিয়নভুক্ত দেশগুলোতে তা পালিত হয় পরদিন ৯ মে।

ভিকট্রি ডে-র ৭৫তম বার্ষিকী উপলক্ষে মস্কোতে এবার ব্যাপক পরিসরে সামরিক কুচকাওয়াজ আয়োজনের পরিকল্পনা করেছিলেন রাশিয়ার প্রেসিডেন্ট ভ্লাদিমির পুতিন। প্রায় ১৫,০০০ সেনার অংশগ্রহণে সম্ভাব্য কুচকাওয়াজটিতে চীনের প্রেসিডেন্ট শি চিনফিং, ফ্রান্সের প্রেসিডেন্ট ইমানূয়েল ম্যাক্রোসহ বিভিন্ন দেশের শীর্ষনেতাদের যোগ দেওয়ার কথা ছিল।

কিন্তু বিশ্বজুড়ে উদ্ভূত করোনা পরিস্থিতির জেরে কুচকাওয়াজের এই কর্মসূচী বাতিল করে দিয়েছে রাশিয়া। এর পরিবর্তে বিমানবাহিনীর ফ্লাইপাস্টের আয়োজন করা হবে মস্কোতে। প্রেসিডেন্ট ভ্লাদিমির পুতিন দিনের কর্মসূচীর সূচনা করবেন মস্কোর রেড স্কোয়ারে অবস্থিত স্মৃতিসৌধে ফুল দিয়ে।

ইউরোপে দ্বিতীয় বিশ্বযুদ্ধ সমাপ্তির ৭৫তম বার্ষিকীতে রাষ্ট্রনেতাদের শ্রদ্ধাজ্ঞাপন :

প্যারিসের স্মৃতিসৌধে ফরাসি প্রেসিডেন্ট ইমানূয়েল ম্যাক্রোর শ্রদ্ধা (Image: Reuters)
বার্লিনের শহীদ স্মারকে জার্মান চ্যান্সেলর অ্যাঙ্গেলা মেরকেলের শ্রদ্ধা (Image: Reuters)
দিনটি স্মরণে ব্রিটেনের রাণী এলিজাবেথের ভাষণ (Image: Reuters)