Home আফ্রিকা আফ্রিকায় এক বছরেই করোনায় মারা যেতে পারে ১৯০,০০০

আফ্রিকায় এক বছরেই করোনায় মারা যেতে পারে ১৯০,০০০

(Image: Reuters)

বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা হুঁশিয়ার করে দিয়ে বলেছে, যথাযথ নিয়ন্ত্রণমূলক পদক্ষেপ না নিতে পারলে শুধু আফ্রিকা মহাদেশেই চলতি বছর করোনা ভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে মারা যেতে পারে সর্বোচ্চ ১৯০,০০০ জন মানুষ। সংস্থাটির সর্বশেষ গবেষণায় বলা হয়েছে, কোভিড-১৯ এর তান্ডব স্থায়ী হতে পারে আগামী কয়েক বছর পর্যন্ত।

ইউরোপ, যুক্তরাষ্ট্র বা এশিয়ার চেয়ে আফ্রিকায় করোনা ভাইরাসের সংক্রমণ এখন পর্যন্ত তূলনামূলক কম। অতীতে এইডস, যক্ষ্মা প্রভৃতি রোগ নিয়ন্ত্রণের অভিজ্ঞতা ও আফ্রিকানদের স্বাভাবিক কম মৃত্যুহারকে এই ইতিবাচক পরিস্থিতির মূল কারণ বলে ধরা হচ্ছে।

তবে করোনা সংক্রমণ কম হওয়ায় এরই মধ্যে নাইজেরিয়া, দক্ষিণ আফ্রিকা, আইভরি কোস্টসহ বেশ কয়েকটি দেশ লকডাউন শিথিল করার উদ্যোগ নেওয়ায় ভবিষ্যৎে পরিস্থিতি খারাপ হয়ে যাওয়ার সম্ভাবনা দেখছে বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা।

সর্বশেষ গবেষণাটিতে কি বলা হয়েছে?

আফ্রিকার করোনা পরিস্থিতি নিয়ে বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থার করা গবেষণাটিতে ধারণা দেওয়া হয়েছে, মহাদেশটিতে এবছর ২ কোটি ৯০ লক্ষ থেকে সর্বোচ্চ ৪ কোটি ৪০ লক্ষ লোক নভেল করোনা ভাইরাসে আক্রান্ত হতে পারে। এর মধ্যে মৃত্যু হতে পারে ৮৩,০০০ থেকে সর্বোচ্চ ১৯০,০০০ লোকের।

গবেষণাটি মিশর, লিবিয়া, তিউনিশিয়া, মরক্কো, ইরিত্রিয়া, সুদান, সোমালিয়া ও জিবুতি বাদে আফ্রিকার বাকি ৪৭টি দেশের ১০০ কোটি জনসংখ্যার ওপর চালানো হয়েছে।

আফ্রিকা মহাদেশে এখন পর্যন্ত কোভিড-১৯ এ আক্রান্ত হয়ে মারা গেছেন ২,০০০ জন। ইউরোপের ১৪০,০০০ মৃত্যুর তুলনায় সংখ্যাটি খুবই কম। লেসোথো ছাড়া আফ্রিকার সবক’টি দেশেই করোনা আক্রান্ত রোগী সনাক্ত করা হয়েছে।

মহাদেশটিতে এখন পর্যন্ত সবচেয়ে বেশি করোনা ভাইরাস সনাক্ত করা হয়েছে দক্ষিণ আফ্রিকায় ৮,২০০ জনের দেহে, দেশটিতে মৃত্যু হয়েছে ১৬০ জনের। অন্যদিকে মৃতের সংখ্যায় শীর্ষে রয়েছে আলজেরিয়া, সেখানে করোনা ভাইরাসের প্রকোপে মারা গেছেন ৪৮৩ জন।

বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা সতর্ক করে দিয়ে বলেছে, যথাযথ পদক্ষেপ না নিলে আগামী কয়েক বছর পর্যন্ত কোভিড-১৯ রোগটি নিয়েই আমাদের বসবাস করতে হবে। সংস্থাটি সন্দেহভাজন আক্রান্তদেরকে দ্রুত ‘পরীক্ষা করা, চিহ্নিত করা, বিচ্ছিন্ন করা ও চিকিৎসা দেওয়া’-র ওপর জোর দিতে বলেছে।